জমিয়তে উলেমা হিন্দের উদ্যোগে যুবককে উদ্ধার করে পরিবারের হাতে ফেরালো

জমিয়তে উলেমা হিন্দের উদ্যোগে যুবককে উদ্ধার করে পরিবারের হাতে ফেরালো

সেখ রিয়াজুদ্দিন বীরভূম:- রাজ্যের বাইরে কাজে গিয়ে দালালের খপ্পরে পড়ে সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়ার জন্য পরিবারের লোকজন আতঙ্কিত হয়ে পড়েন।বিশেষ করে সহকর্মী যখন একাই ছেড়ে পালিয়ে আসে তখন আটকে পড়া ব্যাক্তির পরিবার আরো ভয় পেয়ে যান।দেখা দেয় তার প্রান সংশয়।বিবরণে প্রকাশ গত ২১ শে এপ্রিল লোকপুর থানার বারাবন গ্রামের দুই যুবক পোকলেন মেশিনের অপারেটর ও হেল্পার হিসেবে কাজে যায়।দালাল মারফত তাদের আসাম রাজ্যে নিয়ে যাবার কথা থাকলেও অরুণাচল প্রদেশে কাজে লাগিয়ে দেয়।কিন্তু সেখানে তাদের ঠিক মতো কাজে সুবিধা হচ্ছিলো না।এমনকি বাড়িতে যোগাযোগ ও ঠিক ভাবে করা যাচ্ছিল না।ইতিমধ্যে সুযোগ বুঝে অপারেটর হাসিমুদ্দিন সেখ( ২০) হেল্পার সেখ হাসান (১৭)কে ছেড়ে সেখান থেকে চলে আসে।এরপর গ্রামে শুরু হয়ে যায় নানা গুঞ্জন।বাড়ির লোকজন বহু চেষ্টা করেও ছেলেকে আনতে ব্যর্থ হন।শেষ পর্যন্ত বীরভূম জেলা জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ এর শরনাপন্ন হয়।সংগঠনের পক্ষ থেকে লোকপুর থানার ওসি,বিডিও,এসডিও সহ বিভিন্ন স্তরে যোগাযোগ করেন।গত দশদিনের প্রচেষ্টায় আজ জমিয়তে উলামায়ে হিন্দ এবং লোকপুর থানার ওসির সহায়তায় শেখ হাসানকে বারাবন গ্রামে নীচে পাড়া মসজিদ সংলগ্ন প্রাঙ্গণে এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে তার পরিবারের হাতে তুলে দেন। লোকপুর থানার ওসি সেখানে বক্তব্যের মাধ্যমে বলেন বাইরে কাজে গেলে দেখেশুনে বা সাবধানে যেন যায়। কোনো অসুবিধা হলে স্থানীয় থানার সাথে যোগাযোগ করতে বলেন। এ বিষয়ে ওসি সর্বদা সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবেন বলে আশ্বাস দেন। এদিন বারাবন গ্রামবাসীদের পক্ষ থেকে ওসি সহ জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের প্রতিনিধিদের পুষ্পস্তবক দিয়ে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। উপস্থিত ছিলেন লোকপুর থানার ওসি অশোক সিংহ মহাপাত্র, জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের জেলা সহ সম্পাদক মৌলানা এজাজুল হক, সংগঠনের খয়রাসোল ব্লক সভাপতি হাফিজ মহঃ নাসিরুদ্দিন, সদ্য পঞ্চায়েত সমিতির নির্বাচিত সদস্য আইনুস খান প্রমুখ।

Leave a Reply