October 22, 2020

সুরজ প্রসাদ,

অমানবিকতার সাক্ষী হল বর্ধমান শহর। রাস্তার ধারে সদ্যোজাত শিশুর ক্ষতবিক্ষত দেহ পড়ে থাকা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়ালো বর্ধমান শহরে। সদ্যোজাত শিশুর দেহে রাস্তার ধারে বৃষ্টির মধ্যে দীর্ঘক্ষন পড়ে থাকে এবং রাস্তার কুকুরে দেহটিকে একস্থান থেকে অন্যস্থানে টানাহেঁচড়া করে নিয়ে এসেছে বলে জানান স্থানীয় বাসিন্দারা। শনিবার ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমান শহরের ছোটনিলপুর আমবাগান এলাকায়। স্থানীয় বাসিন্দারা থানায় খবর দিলে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় বর্ধমান থানার পুলিশ। দেহটিকে উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠায় তারা। সদ্যোজাত শিশুর ক্ষতবিক্ষত দেহ টি বেলচায় করে উদ্ধার করায় স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে বিক্ষোভ দেখা গেছে। স্থানীয় বাসিন্দা উত্তম সমাদ্দার বলেন, বৃষ্টির মধ্যে দীর্ঘক্ষন শিশুটির দেহ রাস্তায় পড়েছিল। রাস্তার কুকুরের এটিকে টানাহেঁচড়া করছিলো। তার অনুমান শিশুটির বয়স আনুমানিক ১থেকে ২ দিন হবে। স্থানীয়রা কেউ শিশুটিকে এইভাবে ফেলে দিয়ে গেছে বলে উত্তম বাবু অভিযোগ করেন। অপর এক বাসিন্দা সঞ্চিত মাকড় বলেন, সদ্যোজাত শিশুর দেহ এইভাবে পড়ে থাকাটা খুবই বেদনাদায়ক। আমাদের সকলেরই সন্তান আছে যারা এইভাবে সদ্যোজাত শিশুকে ফেলে দিয়ে গিয়েছে তারা খুবই নিষ্ঠুর তাদের অবিলম্বে শাস্তি হওয়া উচিত।