November 26, 2020

গোপাল দেবনাথ,

।করোনা মহামারী আতঙ্কের মাঝেই ঢাকে পড়ল কাঠি। উল্টো রথের শুভলগ্নে খুঁটি পুজো সারল বেলেঘাটা ৩৩ পল্লী দুর্গোৎসব কমিটির সদস্যবৃন্দ।

আর মাত্র কয়েকদিন বাকি দুর্গাপুজো। কিন্তু এই বছরের চিত্রটা সম্পূর্ণ আলাদা।

নেই সেই রব নেই নেই আনন্দের ঘনঘটা। তবে, এরই মাঝে পুজোর আনন্দে মজলো বেলেঘাটা ৩৩ পল্লী। খুঁটি পুজো হলেই বাঙালির মনে হাসি ফুটে ওঠে। কার্যত পুজোর ঢাকে পরে কাঠি। বাঙালির সেরা উত্‍সবের কাউন্টাডাউন শুরু।

উল্টো রথেই হল খুঁটি পুজো বেলেঘাটা ৩৩ পল্লীর। আজ খালি খুঁটি পুজোই ছিলনা সেই সাথে ছিল স্বেচ্ছা রক্তদান শিবির। এই বছর ৩৩পল্লীর পুজো এবং রক্তদান শিবির ২০তম বর্ষে পদার্পন করলো।

প্রায় ৯০ জন রক্তদাতা সরকারি বিধি নিষেধ মেনে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে এই রক্তদান শিবিরে অংশগ্রহণ করল।

রক্তদাতাদের মধ্যে উৎসাহ ছিল নজরকাড়া। এলাকাবাসী সারা বছর ধরে অপেক্ষা করে শারদ উৎসব তথা দুর্গা পুজোর জন্য।

২০০১ সালে স্থাপিত এই ৩৩পল্লী ইতিমধ্যে বেশ কয়েক বছর ধরে নজরকাড়া পুজো করে আসছে।এই পুজো কমিটি প্রতি বছরই নতুন নতুন ভাবনা নিয়ে দর্শকদের চমকে দেয়। দর্শকদের বিচারে এই পুজোকে উত্তর-পূর্ব কলকাতার সেরা পুজোর তকমা দেওয়া যায়।

খুবই অল্প সময়ের মধ্যে শহরের বিখ্যাত ৩৩পল্লী পুজো কমিটির সম্পাদক হাবু সাহা জানালেন, আমরা যেমন সারা বছর ধরে বিভিন্ন সামাজিক কর্মকাণ্ড করে থাকি সেই সাথে আমরা এই দুর্গোৎসবও সব সময় খুব ভালো ভাবে সম্পন্ন করার চেষ্টা করি।