May 17, 2022

জ্যোতিপ্রকাশ মুখার্জি,


প্রথমে করোনা এবং পরে আমফান – এই জোড়া আক্রমণে বিপর্যস্ত অসহায় মানুষের পাশে যেসব তৃণমূল নেতাদের বারবার দাঁড়াতে দেখা গেছে তাদের অন্যতম হলেন পূর্ব বর্ধমানের আউসগ্রামের বিধায়ক অভেদানন্দ থাণ্ডার ও গুসকরা শহর সভাপতি কুশল মুখার্জ্জী।
গত ৩ রা জুলাই গুসকরা পুরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের ৫০ টি গরীব ও দুঃস্থ আদিবাসী পরিবারের হাতে চাল, আলু, ডাল, সরষে তেল, সাবান ও লবণ তুলে দিলেন বিধায়ক ও গুসকরা শহর সভাপতি জুটি এবং তাদের সঙ্গে ছিলেন সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের তৃণমূল নেতা-কর্মীরা। এইসব খাদ্য সামগ্রী পেয়ে খুশি আদিবাসী পরিবারগুলি দুই হাত তুলে আশীর্বাদ করলেন বিধায়ক ও শহর সভাপতিকে।
পরে বিধায়ক বলেন – জনগণ আমাকে নির্বাচিত করেছেন আপদে-বিপদে তাদের পাশে থাকার জন্য। দলনেত্রী তো বটেই, ‘দাদা’ অনুব্রত মণ্ডলের কড়া নির্দেশ করোনায় আপাতত কাজ হারানো এলাকার কোনো মানুষ যাতে অভুক্ত না থাকে সেই বিষয়ে যেন সতর্ক থাকি। ‘দাদা’ শুধু নির্দেশ দেননি সাহায্যের ডালি নিয়ে পাশে দাঁড়িয়েছেন এবং আবার দাঁড়ানোর প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন।
কুশল মুখার্জ্জীর গলায় শোনা গেল একই সুর। তিনি বললেন- ব্লক সভাপতি সহ অন্যান্য দলীয় নেতা-কর্মীদের সহযোগিতার জন্য আমাদের কাজটি সহজ হয়েছে। তবে করোনা সংক্রান্ত বিধি-নিষেধের জন্য আমাদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কাজ করতে হচ্ছে।