December 5, 2020

শ্যামল রায়,


একমাস ধরে স্ত্রী বাপের বাড়ি চলে যায় পারিবারিক অশান্তির জেরে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী হলো এক যুবক। শনিবার নবদ্বীপ থানা সূত্রে জানা গিয়েছে মৃত যুবকের নাম কেনারাম ঘোষ বয়স -৩৫। বাড়ি নাদন ঘাট থানার দোগাছিয়া গ্রামে। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে যে প্রেমে আবদ্ধ হয়ে এক বিবাহিত স্ত্রীকে বিয়ে করেছিল কেনারাম ঘোষ। তার একটি ছেলে ও একটি মেয়ে রয়েছে। অভাবের তাড়নায় পরিবারে অশান্তি লেগে থাকত। এক মাস ধরে পারিবারিক অশান্তির জেরে বাপের বাড়ি চলে যায় তার স্ত্রী। স্ত্রী বাপের বাড়ি চলে যায় মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন স্বামী কেনারাম ঘোষ। অবশেষে শুক্রবার রাতে গামছা গলায় পেচিয়ে আত্মঘাতী হয়।
দ্রুত পরিবারের লোকজন নবদ্বীপ স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসকরা মৃত বলে জানায়। পুলিশ মৃতদেহটি হাসপাতাল থেকে থানায় নিয়ে আসে এবং ময়নাতদন্ত হয় শক্তিনগর হাসপাতাল। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।