September 28, 2020

আমিরুল ইসলাম


স্ত্রীর সঙ্গে অভিমানে গলায় দড়ি দিয়ে আত্মঘাতী হলেন ভাতারের এক যুবক, এলাকায় শোকের ছায়া।

পূর্ব বর্ধমান জেলার ভাতারের বলগোনা গ্রামে তপন দাস, বয়স 28 বছর, স্ত্রীর সঙ্গে অভিমানে হলেন তিনি।
তপন দাসের বাবা গোপন দাস জানান,আমরা স্বামী-স্ত্রী দুজনেই বর্ধমান এ কাজ করি। বর্ধমানেই থাকি, ছেলের সঙ্গে বৌমা জবা দাসের প্রায়ই ঝগড়া হতো।
গত দু’মাস আগে বৌমা জবা দাস বাবার বাড়ি ভাতারের ভাটাকুল চলে যায়।
আর বৌমা আসেনি তাই অভিমানে গতকাল রাত্রে আমার বাড়ির কাছে অন্য মুন্না মন্দিরের পাশে একটি আটচালায় গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মঘাতী হয়েছেন আমার ছেলে তপন দাস।
আমার ছেলে আত্মহত্যা না করে আমার কাছে চলে গেলে হয়তো এই ঘটনা ঘটতো না।

সমগ্র ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় শোকের ছায়া পুলিশ মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য বর্ধমান মেডিকেল কলেজ পাঠিয়েছে।
পুলিশ সূত্রে খবর এখনো পর্যন্ত কোনো অভিযোগ হয়নি ভাতার থানায়।