October 24, 2020

পরিবেশ রক্ষায় বারাবনি বিধানসভার ১৯ টি পঞ্চায়েত প্রধান দের এর হাতে চারা গাছ বিতরণ

কাজল মিত্র

:- জলবায়ু পরিবর্তনের ঝুকি মোকাবেলা, প্রকৃতির সৌন্দর্যবর্ধন, পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা এবং সবুজ পরিবেশ গড়তে শুক্রবার সকালে রূপনারায়নপুর নান্দনিক সভাগৃহে বন দফতরের সহযোগিতায় বরবানী বিধায়ক বিধান উপাধ্যায় সলানপুর ব্লকের ১১ টি গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধান এবং বারবানী ব্লকের নয়টি গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানকে
ব্যক্তিগত উদ্যোগে ১০০০ টি চারা গাছ বিতরণ করেন। বিধায়ক বিধান উপাধ্যায় এই অনুষ্ঠানে বলেন যে একজন মানুষের বেঁচে থাকতে প্রতিদিন প্রায় তিন সিলিন্ডারের মতো অক্সিজেন প্রয়োজন পড়ে। দিন দিন মানুষ বাড়ছে কিন্তু সে তুলনায় বাড়ছে না গাছের সংখ্যা। আমাদের নিজেদের সুস্থ ও সুন্দরভাবে বেঁচে থাকতে হলে বৃক্ষরোপণ আবশ্যক।তাছাড়া এখন যেভাবে দিন দিন দেশে করোনার মহামারী বেড়ে চলছে,তাছাড়া আমফান,আইলার তিতলির মত ভয়াবহ দুর্যোগে বহু গাছ পালা নষ্ট হয়েগেছে যার ফলে পরিবেশও দূষিত হয়েছে, তাই রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে বনবিভাগের সহযোগিতায়
সালানপুর ব্লক ও বারাবনি ব্লকের প্রতিটি গ্রাম পঞ্চায়েত প্রধানদের হাতে প্রায় 1000 টি চারা গাছ বিতরণ করা হয়েছে যারমধ্যে নিম, সিতাফল এবং তুলসী, আম, বেরি, নারকেল, মেহেগুনী, শাল, সহ বহু গাছ ছিল ।
এদিন পঞ্চায়েত সভাপতি ফাল্গুনি ঘাসি বলেন যে গাছ ও গাছপালা মানবজীবনের অমৃত। পরিবেশ রক্ষা এবং রোগ থেকে মানুষের জীবন রক্ষার জন্য, প্রত্যেককে গাছ এবং গাছপালা লাগানো উচিত ।সমস্ত প্রধান নিজ নিজ পঞ্চায়েত এলাকায় গাছ লাগিয়ে সমাজকে রক্ষা করতে পারে।
এ উপলক্ষে জেলা পরিষদ কর্মাধ্যক্ষ মহম্মদ আরমান সালানপুর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ফাল্গুনী কর্মকার ঘাসি, সহ-সভাপতি বিদ্যুৎ মিশ্র, রূপনারায়ণপুর রেঞ্জ অফিসার সৌরেশ সাধু, সালানপুর ব্লক তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক ভোলা সিং, ,জিতপুর পঞ্চায়েত প্রধান তাপস চৌধুরী, রূপনারায়নপুর পঞ্চায়েত প্রধান রানু রায়, ফুলবেড়িয়া পঞ্চায়েত প্রধান উজ্জ্বল মন্ডল, সমাজকর্মী বাবলু ঘাসি, ফুচু বাউরি,ও অন্যান্য পঞ্চায়েত প্রধান ও উপপ্রধান উপস্থিত ছিলেন।