October 22, 2020

সুরজ প্রসাদ

পূর্ব বর্ধমানের প্রাক্তন জেলা সভাধিপতি তথা বর্তমান সহ সভাধিপতি করোনা পজিটিভ হয়েছেন। এর ফলে আলোড়ন পড়েছে জেলার প্রশাসনিক মহলে। কয়েকদিন আগেই দলের রাজ্য সমন্বয় কমিটির সদস্য হয়েছেন এই আদিবাসী নেতা। গত শুক্রবার তার করোনা পরীক্ষা হয়। পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। বর্তমানে উপসর্গহীন।তাকে হোম কোয়ারিন্টিনে থাকতে বলা হয়েছ। জেলায় একের পর এক ভি আই পি আর তাদের সহকর্মীর পজিটিভ হচ্ছেন।দিন কয়েক আগে অ্যাডিশনাল এস পি ও তার পরিবারে সংক্রমণ ছড়ায়।কোভিড আক্রান্ত হন ডি এস পি ( হেড কোয়ার্টার) ও।এছাড়াও পরপর আক্রান্ত হন ভাতার; বর্ধমান উত্তর ; মেমারি এবং রায়নার বিধায়কের সিকিউরিটিরা।দেবু টুডুর ব্যক্তিগত দেহরক্ষীও পজিটিভ হয়েছেন।এদের সবাইকে জেলা কৃষি খামারের কোয়ারিন্টিনে রাখা হয়েছে।তখন থেকেই পূর্ব বর্ধমানের জেলা পরিষদের অফিস বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সেদিন থেকেই পরিবারের তার মা স্ত্রী ও কন্যাকে আলাদা রাখা হয়েছে।বর্তমানে বাংলোয় আলাদা ঘরে থাকবেন।স্বাস্থ্য কর্তাদের সাথে তিনি কথা বলেছেন। আপাতত উদ্বেগের কোন কারণ নেই।কারণ তার কোনো উপসর্গ নেই।তবে কোনো উপসর্গ দেখা দিলেই স্বাস্থ্যকর্মীদের সাথে যোগাযোগ করবেন বলে জানিয়েছেন তিনি। গত কদিন ধরে পূর্ব বর্ধমানের কোভিড সংক্রমণের গ্রাফ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। গতকাল জেলায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯ জন। শুধু বর্ধমান শহরেই নতুন করে আক্রান্ত ১০ জন।এই।মুহূর্তে জেলায় ১৭১ টি কনটেনমেন্ট জোন রয়েছে। জেলায় মোট চিকিৎসাধীন আছেন ২৮৫ টি।মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৫৮২ জন। সংক্রমণ মুক্ত হয়ে ছাড়া পেয়েছেন ২৮৭ জন।বর্ধমান মেমারির মত শহর আর বেশ কয়েকটি গ্রাম পঞ্চায়েতের সব এলাকায় পুরো লকডাউন জারি হয়েছে। পুলিশ কড়া পদক্ষেপ নিচ্ছে। লাগাতার স্বাস্থ্যবিধি মানতে প্রচার চলছে। তবুও সংক্রমণের লাগাম পড়ানো যাচ্ছে না।আজ নতুন করে ভি আই পি আক্রান্ত হলেন।সংক্রমণ বাড়ছে। বাড়ছে উদ্বেগও।