January 28, 2021

আইনমন্ত্রীর রাজনৈতিক সভায় মানা হলো না করোনা পজিটিভ!

তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের সভায় উপচে পড়া ভিড়, আইনমন্ত্রীর সামনে মানা হল না সামাজিক দূরত্ব এর আইন

কাজল মিত্র

:- আজ সিটি সেন্টারের সৃজনী প্রেক্ষাগৃহে তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠনের পক্ষ থেকে শ্রমিক সভার আয়োজন করে জেলা আই এন টিটি ইউ সি সভাপতি বিশ্বনাথ পারিয়াল। এছাড়া সভায় উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গ সরকারের শ্রম ও আইন মন্ত্রী মলয় ঘটক, তৃণমূলের জেলা সভাপতি তথা আসানসোলের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি সহ দুর্গাপুর আসানসোলের কাউন্সিলর সহ মেয়র পরিষদরা।
এই সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে পশ্চিম বর্ধমান জেলা তৃনমুল কংগ্রেসের সভাপতি তথা আসানসোল পুরনিগমের মেয়র জিতেন্দ্র তেওয়ারি বলেন, শ্রমিক সংগঠনকে মজবুত করতে তাদের কিছু কথা জেনে রাখা দরকার । বাম আমলে শ্রমিক আন্দোলন লাগাতার ও তীব্র লড়াইয়ে কারণে কলকারখানা সব বন্ধ হয়ে গেছিলো। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় উপলব্ধি করেন যে, শ্রমিকের সমস্যার সমাধান করতে হলে বিকল্প ব্যবস্থা করা জরুরি। প্রথমে মালিক ও শ্রমিক দুপক্ষ ছিলো।মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়,সেই দুই পক্ষের মধ্যে মধ্যস্থতা করতে ত্রিপক্ষীয় ব্যবস্থা লাগু করেন৷ যাতে কারখানা বন্ধ না হয়। বর্তমান পরিস্থিতিতে ভালো শ্রমিক নেতা হতে হলে পদ্ধতি ও শ্রম আইন বিস্তারিত ভাবে জানতে হবে৷ নিয়ম মেনে লড়াই করতে হবে৷ এখন শ্রমিক সংগঠনের মতলব হলো, শুধু চাকরি দিয়ে টাকা কামানো৷ ত্রিপক্ষীয় বৈঠকে বসে, আপনাদের নিয়ম মতো কারখানা কতৃপক্ষর সঙ্গে মজবুত তর্ক ও আলোচনা করতে হবে। বর্তমান পরিস্থিতিতে শ্রমিক সংগঠন করা অনেক কঠিন। তারজন্য শ্রমিক সংগঠনের নেতাদের নিয়ে কর্মশালার আয়োজন করা হোক। যাতে সেখানে তাদের পদ্ধতি ও শ্রম আইন ভালোভাবে তাদের বোঝানো যায়। তিনি আরো বলেন, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায় যে পদ্ধতি তৈরী করে দিয়েছেন, সেই মতো লড়াই করতে হবে। কোন কারখানা আচমকা বন্ধ করা যাবে না।
উল্লেখযোগ্যভাবে সভায় ছিল উপচে পড়া ভিড়।মানা হয়নি কোনো সামাজিক দূরত্ব।