October 22, 2020

‘ছন্দে-কথায় জীবনের রঙ-বেরঙ’ শীর্ষক আলোচনা প্রসঙ্গে

খন্দকার মাহমুদুল হাসান

যেহেতু সাহিত্যে জীবনের ছবি আঁকা যায় তাই একজন সাহিত্যিক এটি জানতে নিশ্চয় আগ্রহী হবেন যে, কোথায় কত নিখুঁতভাবে আঁকা হচ্ছে সেই ছবি। সে কারণে একজন সাহিত্যিকের জন্যে দেশ-বিদেশের সাহিত্যকর্মের বিষয়ে সন্ধিৎসা যেমন স্বাভাবিক তেমন প্রয়োজনীয়। ‘ছন্দে-কথায় জীবনের রঙ-বেরঙ’ নিশ্চয় সেই সন্ধিৎসা জাগিয়ে তুলতে এবং তীব্রতর করতে ভূমিকা রাখবে। প্রধানত কথাসাহিত্য ও ছড়া-কবিতার মাধ্যমে জীবনের ছবি আঁকার ক্ষেত্রে সাফল্য-ব্যর্থতা অন্বেষণের একটি সুযোগ এই আন্তর্জাতিক আন্তর্জালিক আলোচনায় পাওয়া যাবে বলে মনে হয়। প্রযুক্তির এনে দেওয়া সুযোগ কাজে লাগিয়ে বৈশ্বিক দুর্যোগের মধ্যেও এমন আলোচনার আয়োজন করে আসানসোল গার্লস কলেজের বাংলা বিভাগ ও আই.কিউ.এ.সি নিশ্চয় দায়িত্বশীলতার পরিচয় দিয়েছে। এই মহৎকর্মের সঙ্গে আমায় যুক্ত করায় কৃতার্থ হয়েছি। কলেজের বাংলা বিভাগের প্রধান নাফিসা পারভিনের মাধ্যমে এই সংবাদটি জানতে পারায় তাঁর কাছে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

দু’দিন ব্যাপী এই আলোচনার প্রথম দিনে ‘ঊনবিংশ শতকের বাংলা শিশুসাহিত্য’ বিষয়ে যে আলোচনার নির্ধারিত হয়ে রয়েছে তা আমাকে সমৃদ্ধ করতে সহায়তা করবে বলে মনে করি। যেকোনো বিষয়ে পঠন একজন লেখকের সমৃদ্ধিতে ধনাত্মক প্রভাব ফেলে। আমিও এর ব্যতিক্রম হব বলে মনে করার পেছনে শক্ত যুক্তি খাড়া করা যাবে না বলেই মনে হয়। যদিও শিশুসাহিত্য আমার দীর্ঘকালের গবেষণার বিষয় তবু্ এ বিষয় নিয়ে অধিকতর আলোচনা গবেষক, ছাত্র-ছাত্রী ও লেখক-পাঠকদের জন্যে গুরুত্বপূর্ণ এবং অবশ্যই আমার নিজের জন্যেও। কারণ ঊনবিংশ শতকের ভিত্তির ওপর দাঁড়িয়ে আছে বর্তমান কালের শিশুসাহিত্য। ভিতের ধরন সম্পর্কে না জেনে যেমন দালানের দৃঢ়তা সম্পর্কে স্পষ্ট কথা বলা যায় না, ঊনবিংশ শতকের শিশুসাহিত্য সম্পর্কে স্বচ্ছ ধারণা না পেলে তেমনি শিশুসাহিত্যের ঐতিহ্যিক ভিত্তি, হাল অবস্থা, তার দুর্বলতা ইত্যাদি সম্পর্কে সিদ্ধান্তে উপনীত হওয়া সহজ হবে না।

১২ ও ১৩ সেপ্টেম্বর দু’দিনের আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন যে মুখ্য আলোচকেরা তাঁরা হলেন কথাসাহিত্যিক প্রচেত গুপ্ত (ভারত), শিশুসাহিত্যিক খন্দকার মাহমুদুল হাসান (বাংলাদেশ), স্বনামধন্য কথাসাহিত্যিক রামকুমার মুখোপাধ্যায় (ভারত) ও কবি ও অধ্যাপক পাবলো শাহি (বাংলাদেশ)।

১২ সেপ্টেম্বর শনিবার ‘সাম্প্রতিক কথাসাহিত্যের গতিপ্রকৃতি’ বিষয়ে বলবেন কথাসাহিত্যিক প্রচেত গুপ্ত, ‘ঊনবিংশ শতকের বাংলা শিশুসাহিত্য’ বিষয়ে শিশুসাহিত্যিক ও গবেষক খন্দকার মাহমুদুল হাসান বলবেন। ১৩ সেপ্টেম্বর রবিবার আলোচনা করবেন ‘ভারতীয় লোককথা : জীবনের নানা রঙ’ বিষয়ে কথাসাহিত্যিক রামকুমার মুখোপাধ্যায়,’বাংলা কবিতা :চর্যাপদ থেকে সমকাল’ বিষয়ে কবি, চিত্রকর, অধ্যাপক, গবেষক পাবলো শাহী আলোচনা করবেন। এই ধরনের আলোচনা যত অংশগ্রহণমূলক হবে ততই উপকৃত হওয়া যাবে; আলোচনার উদ্দেশ্য ততই সফল হবে। তাই একান্ত কামনা, যে লক্ষ্যে এই আয়োজন তা সফল হোক।

ভারত-বাংলাদেশের মতো বিশ্বের বিভিন্ন স্থানের আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন আলোচক আলোচ্য শীর্ষক এর উপর আলোকপাত করবেন। তরুণ উৎসাহী গবেষকদের জন্য, কর্মসূচীতে তাদের গবেষণা লিখে জমা করার সুযোগ পাবেন। পরবর্তীতে আইএসবিএন সব গ্রন্থ হিসেবে প্রকাশ করবে। এই ভার্চুয়াল সেমিনারের উদ্দেশ্য হলো বক্তা এবং শ্রোতাদের মধ্যে একটি ভার্চুয়াল প্লাটফর্ম তুলে ধরা যেখানে বক্তা এবং শ্রোতা আলোচ্য বিষয়ের উপর নিজেদের দৃষ্টিভঙ্গি, মতামত ও যুক্তি বিনিময় করতে পারে।

      আশা করা যায় এই অনুশীলনের ফলপ্রসূ বার্তা ছাত্র-ছাত্রীদের বিশেষত ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে, বিভিন্ন কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয় এবং গবেষণা ইনস্টিটিউট গুলির অংশগ্রহণকারী তরুণ গবেষকদের গবেষণার মনোযোগে উদ্দীপনা জাগাবে।