December 5, 2020

সারা ভারত কৃষক সভা সালানপুর ব্লক কমিটির পক্ষ থেকে ৯ দফা দাবিদাবা নিয়ে দেন্দুয়া পঞ্চায়েতে স্মারকলিপি প্রদান:-

কাজল মিত্র

:- সোমবার সিপিএমের সারা ভারত কৃষক সভা সালানপুর ব্লক কমিটির পক্ষ থেকে ৯ দফা দাবিদাবা নিয়ে দেন্দুয়া গ্রাম পঞ্চায়েত ঘেরাও করে,
পঞ্চায়েতের প্রধান ও উপ প্রধানের হাতে ৯ দফা দাবিদাবা নিয়ে স্মারকলিপি তুলে দেওয়া হলো।
এই প্রসঙ্গে সিপিএম নেত্রী শিপ্রা মুখার্জী বলেন,বর্তমানে রাজ্যের কৃষক ও শ্রমজীবি মানুষের সীমাহীন দুর্দশার কারণে পশ্চিমবঙ্গ প্রাদেশিক কৃষক সভার তরফে ডেপুটেশনের দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়, যে দাবি গুলি নিয়ে আমরা আজ দেন্দুয়া পঞ্চায়তে ডেপুটেশনে দিলাম সেগুলি হলো:-
১) পঞ্চায়েত এলাকায় সমস্ত গরিব মানুষের প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনা পাকা ঘর নির্মাণ করতে হবে,গৃহনির্মাণে কোনরকম দুর্নীতি করা চলবে না।
২) সমস্ত সংসদে একশ দিনের কাজ চালু করতে হবে ও দৈনিক তিনশ টাকা মজুরি দিতে হবে।
৩) একশ দিনের কাজকে কৃষি কাজের সাথে যুক্ত করতে হবে কাজের টাকা সময় মত প্রদান করতে হবে।
৪) পঞ্চায়েত অফিস থেকেই এলাকার কৃষকদের থেকে ধান কেনার ব্যবস্থা করতে হবে।
৫) সমস্ত পরিবারকে ডিজিটাল রেশন কার্ড দিতে হবে।
৬) সমস্ত গ্রামীণ গরিব মানুষদের মাথাপিছু ১৫ কেজি চাল/গম ডাল ভোজ্যতেল আলু ও মসলা সরবরাহ করতে হবে।
৭) সব পরিবারের বিদ্যুৎ বিল ২০০ ইউনিট পর্যন্ত মুকুব করতে হবে।
৮)৬০ বছরের উর্ধ্বে সমস্ত গরিব মানুষের বার্ধক্য পেনশন দিতে হবে।
৯) এলাকার সমস্ত রাস্তা মেরামতের ব্যাবস্থা করতে হবে।
তাছাড়া তিনি জানান কেন্দ্র ও রাজ্য সরকার গরীব মানুষের শোষণ করে চলেছেন,কিন্তু আর তা মানা চলবে না গরীবদের হকের জিনিস গরিবদের প্রদান করতে হবে না হলে সর্ব ক্ষেত্রে সিপিএম রাজ্য ও কেন্দ্র সরকারের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবে।
তিনি আরো বলেন রাজ্যের মানুষ ২০১১ সালে ভুল সিদ্ধান্ত নিয়ে তৃণমূলের সরকার নিয়ে এসেছিলো আর যদি রাজ্যের মানুষ এই সরকার পরিবর্তন করে বিজেপির সরকার নিয়ে আসে তবে খাল কেঁটে কুমির নিয়ে আসা হবে কারন এই দুই সরকার সাধারণ মানুষের শোষণ করে।
এই সবাই মধ্য দিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের কড়া ভাষায় বার্তাদেন আজকের সিপিএমের তরফে ডেপুটেশনে অনুষ্ঠানে গ্রামে গ্রামে লোক পাঠিয়ে তাদের মিছিলে গরিব মানুষদের মিছিলে আসতে দেওয়া হচ্ছে না তাছাড়া গুন্ডা পাঠিয়ে তাদের ভয় দেখানোর চেষ্টা করা হচ্ছে,তারা এই সবকে ভয় পায়না কারণ সাধারণ মানুষ তাদের পাশে রয়েছে।
এর জবাব সাধারণ মানুষ ২০২১ নির্বাচনে দেবে।
এই অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন সিপিএম শ্রমিক নেতা অশোক ব্যানার্জী,মেঘনাথ ব্যানার্জী,কৃষক নেতা গিরিশ টুডু,গণেশ পন্ডিত,সুনীল মণ্ডল, মহিলা নেত্রী বন্নি ঘোষ সহ আরো অনেকে।