October 20, 2020

আমিরুল ইসলাম ,


ভাতারের সন্তোষপুরে পঞ্চায়েত সদস্যা গাছ কাটতে বাধা দিলে সদস্যকে মারধর, চরম উত্তেজনা, ঘটনাস্থলে ভাতার থানার পুলিশ।

পূর্ব বর্ধমান জেলার নিত্যানন্দপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের অন্তর্গত সন্তোষপুর গ্রামে গাছ কাটা নিয়ে চরম উত্তেজনা, গাছ কাটা বন্ধ করতে গেলে পঞ্চায়েত সদস্যা কে হেনস্তা করা হয়, এমনকি মারধর করা হয় বলে অভিযোগ। পঞ্চায়েত সদস্যা জাহানারা খাতুন এর অভিযোগ রাস্তার ধারে গ্রাম পঞ্চায়েতের গাছ ছিল ।সেই গাছ সন্তোষপুর গ্রামের বাসিন্দা মোল্লা আলাউদ্দিন পঞ্চায়েতের কোনো অনুমতি না নিয়েই কেটে নিচ্ছিল ।আমি সেটা গ্রাম পঞ্চায়েত কে জানাই। গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে প্রতিনিধিরা এসে সেই গাছ কাটা বন্ধ করে দেয় গতকাল। পুনরায় আজ সকাল বেলায় সেই গাছ কাটার কাজ শুরু করে ।আমি ঘটনাস্থলে গেলে আমাকে হেনস্তা করা হয়, পাশাপাশি মারধর করা হয়। আমি লিখিত অভিযোগ জানালাম ভাতার থানায়।

অপরদিকে মোল্লা আলাউদ্দিন স্বীকার করে সে গ্রাম পঞ্চায়েতের অনুমতি না নিয়েই গাছ কাটছিলেন। কিন্তু পঞ্চায়েত সদস্যা কে তিনি কোন মারধর করেন নি। তার বাবা জায়গা ও গাছ কিনেছিলেন ।তাই তিনি গাছ কাটছেন।
এ বিষয়ে গ্রাম পঞ্চায়েতের উপপ্রধান জুলফিকার আলী জানান, গতকালই আমি জানতে পেরেছিলাম যে অবৈধভাবে গাছ কাটা হচ্ছে। গ্রাম পঞ্চায়েতের কোন অনুমতি নেই ।রাস্তাটি গ্রাম পঞ্চায়েতের এবং সেই রাস্তার ধারে গাছটি ছিল ।সেই গাছ কেটে ফেলা হচ্ছিল, আমি নিষেধ করেছিলাম ।পুনরায় আজ গাছ কাটছিল ।আমার পঞ্চায়েত সদস্যাকে মারধর করে। আমি লিখিত অভিযোগ জানালাম ভাতার থানায়।