January 21, 2021

রুদ্রাক্ষের মালা,


স্বপ্না ব্যানার্জ্জী

সুখের তুমি কি বুঝো সূর্য ?
বর্ষার জলে কখনো কাগজের নৌকা ভাসিয়ে দেখেছো ?
ভোকাট্টা ঘুড়ি পেরে এনেছো গাছের মগডাল থেকে ?
বজ্রপাতে পুড়ে যাওয়া কোনো গাছের কষ্ট দেখেছো ?
দিনের পর দিন বিশ্বাস করেছি তোমাকে নির্বিদায়,
কালো রাত আরো বেশী কালো হলে কেমন লাগে ?
স্বপ্নের মায়াবী পথ হাঁটতে বড় কষ্ট হয় সূর্য,
আমি এক পরিপূর্ণ নারী, আমার জীবনে তুমি দিলে রঙ বে রঙের বিস্ময় বোধক চিহ্ন,
তোমার চোখের সামনে থেকে আমি সরে যাচ্ছি
পারোতো রাবার দিয়ে মুছে ফেলো মনটাকে,
আর সেই জায়গায় বসিয়ে নিও কোন ধান্দাবাজ মহিলাকে যে শুধু তোমাকে শেষ করে দিতে চায় মায়াজালে,
তোমার সন্ধ্যে ঘনিয়ে আসা বিকেলে যদি তুমি চিনতে পারো ঐ মায়াবিনীকে ফিরে এসো তবে আমার কাছে।
লক্ষভেদী দৃষ্টিতে বসে আছে মায়াবিনী মাছরাঙা পাখির চোখের দিকে, ভুল করোনা সূর্য্য,
মন্দাকিনী স্রোতে ভেসে যাওয়া দুষ্প্রাপ্য রুদ্রাক্ষের মালা আমি,
যদি কোনদিন কষ্ট পাও মনে কোরো আমাকে
গলার মালা করে নিও রুদ্রাক্ষের মালাকে….