January 26, 2021

মোল্লা জসিমউদ্দিন টিপু,


মঙ্গলবার দুপুরে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের এজলাসে টেট পরীক্ষার্থীদের মামলার শুনানি চলে। সেখানে বিচারপতি ২০১৪ সালে টেট পরীক্ষার্থীদের ৬ টি ভূল প্রশ্নের জন্য অতিরিক্ত ৬ নাম্বার যথাযথ বলে জানিয়ে দেন।পাশাপাশি টেট পরীক্ষার্থীদের ফর্ম ফিলাপের সময়সীমা বাড়িয়ে ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত বেঁধে দেন।যা ৬ জানুয়ারি পর্যন্ত ছিল।অফলাইনেও আবেদন জানানো যাবে বলে বিচারপতি আদেশনামায় জানিয়েছেন।প্রাথমিক বোর্ডের আইনজীবী রাতুল ঘোষ জানিয়েছেন – ‘আদালত প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে স্থগিতাদেশ জারী করেনি।এটা নিয়োগ প্রক্রিয়ার ক্ষেত্রে আশার আলো’। উল্লেখ্য, গত ২৩ ডিসেম্বর নবান্ন থেকে মুখ্যমন্ত্রী প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে সাড়ে ১৬ হাজার শুন্যপদ পূরণ করবার নির্দেশ দেন। আগামী ১০ জানুয়ারি থেকে ১৭ জানুয়ারি ইন্টারভিউ সহ ৩১ জানুয়ারি তৃতীয় টেট পরীক্ষার সময়সূচি জানিয়েছিলেন। গত ২৪ ডিসেম্বর তা রাজ্য প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ বোর্ড বিজ্ঞপ্তিতে তা জানিয়েও দেয়।সম্প্রতি কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি রাজর্ষি ভরদ্বাজের এজলাসে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগে বোর্ডের বিজ্ঞপ্তি কে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে মামলা দাখিল করেন আইনজীবী ফিরদৌস শামীম। পিটিশনে তিনি উল্লেখ্য রেখেছেন যে, – ‘ ২০১৪ সালের টেট পরীক্ষার্থীদের থেকে নিয়োগ হওয়ার কথা।ওই বছরের টেটের প্রশ্নমালায় ৬ টি ভূল প্রশ্ন ছিল, তা আদালতে বিবেচনাধীন।তাই নাম্বার সমস্যা টি সমাধান না করে নিয়োগ প্রক্রিয়া শুরু উচিত নয়’।মঙ্গলবার দুপুরে কলকাতা হাইকোর্ট এই ৬ নাম্বার পরীক্ষার্থীদের যুক্ত রেখে আগামী ৮ জানুয়ারি পর্যন্ত ফর্ম ফিলাপের সময়সীমা বেঁধে দিল।